top of page

সঙ্গী যখন মোটর সাইকেল,সঙ্গী তখন ব্যথাও

Updated: Jul 8, 2021

আমাদের উপমহাদেশেমোটর সাইকেল বিক্রির যা প্রবণতা তা পশ্চিমি দেশগুলোতে দেখতে পাওয়া যাবে না. আমরা বাইক ছাড়া কোনো কাজকর্ম করতে পারিনা. সারাদিনে অনেকে ৫০ থেকে ৭০ কিলোমিটারও বাইক চালিয়ে থাকেন, যার ফলে কোমর, পিঠ এবং ঘাড়ে ব্যথা হয়. দিনের পর দিন এই ব্যথা মারাত্মক আকার ধারণ করে যখন আমরা ডাক্তার এর কাছে ছুটি. ডাক্তার প্রথমে ব্যথার ওষুধ খেতে দেন এবং তাতে না কমলে ফিজিওথেরাপিস্ট এর কাছে পাঠান. ফিজিওথেরাপিস্টরা যখন পেশেন্ট কে হাতে নেন তখন অনেক দেরি হয়ে যায়. বেশিরভাগ পেশেন্টদের ডিস্ক প্রলাপ্সের দিকে চলে যায়. তাই আগে থেকে যদি সচেতন থাকা যায় তাহলে বাড়াবাড়ি হয় না.


এক - এক্সটেনশন ইন স্ট্যান্ডিং -

এই এক্সারসাইজ টি খুব কমন এবং খুব এফেক্টিভ যারা গাড়ি বা বাইক চালান. সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে কোমরে হাত দিয়ে শরীর পেছনের দিকে নিয়ে যেতে হবে, কোমরের ব্যাক বেন্ডিং করতে হবে. সারাদিন এ চারবার এবং প্রত্যেক বার এ ১০ - ১৫ বার করতে হবে.


দুই - এক্সটেনশন অফ ডর্সালস্পাইন -

সোজা হয়ে বসে দুটো হাত জোড়া করে মাথার পেছনের দিকে নিয়ে ধরতে হবে, তারপর পিঠ থেকে শরীর পেছনের দিকে বাঁকাতে হবে.দেখতে হবে প্রেসার যেন পিঠে পড়েকোমরে নয়. এই এক্সারসাইজ টি যারা কম্পিউটার এ সারাদিন কাজ করেন তাদের জন্যও খুব কাজে লাগে. এক এক বাড়ে ১৫ বার করে সারাদিন এ ২ বার করলেই হবে.


তিন - রিট্রাকশন ইন সিটিং -

এই এক্সারসাইজ টি আয়ত্ত করা একটু কষ্টকর কিন্তু খুব ফলপ্রসূ. তাই প্রথম দিকে অনেক পেশেন্ট কে আমার এটি সোজা শুয়েও শিখিয়ে থাকি. একটি চেয়ার বা টুল এ সোজা হয়ে বসতে হবে, তারপর মাথা পেছনের দিকে নিয়ে যেতে হবে. এক্ষেত্রে দেখতে হবে মাথা পেছনে নিয়ে যাবার সময় চোখের লেভেল যেন গ্রাউন্ড লেভেলের সাথে মেইনটেইন হয়. যদি বসে না করা যায়, তাহলে এই এক্সারসাইজ টি সোজা শুয়ে করা যেতে পারে.


চার - MET -

ট্রাপিজিয়াস মাসল এর এই এক্সারসাইজ টি খুব উপকারী. সোজা বসে একহাতে করে অন্যদিকের সোল্ডার জয়েন্ট এর উপর চাপ দিতে হবে এবং হাতের চাপের এগেইনস্ট এ সোল্ডার কে ওপর এর দিকে তোলার চেষ্টা করতে হবে. পর্যায়ক্রমে দুদিকেই করতে হবে, এক এক বাড়ে ৫ বার, সারাদিন এ ২ বার.


পাঁচ - সোল্ডার রোটেশন -

সোজা বসে সোল্ডার ক্লকওয়াইস ও আন্টি ক্লকওয়াইস রোটেশন করুন. এই এক্সারসাইজ সারাদিন যখন সময় পাবেন করতে পারেন.


ছয় - ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ -

যেকোনো ধরণের ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ অনেক্ষনের বাইক চালানোর ক্লান্তি দূর করে.তাছাড়া ফ্রী হ্যান্ড এক্সারসাইজ জয়েন্টকে সচল রাখতে এবং মানুষকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে.

যদি এই সমস্ত এক্সারসাইজ গুলো নিয়িমিত করা যায় তাহলে বাইক চালালেও আপনি সুস্থ থাকবেন.এছাড়াও আরো অনেক এক্সারসাইজ আছে যেগুলো প্রয়োজন মতো ফিজিওথেরাপিস্ট এর পরামর্শ নিয়ে করা যেতে পারে.


সাত- Posture -

বাইক চালানোর সময় যদি ঠিকভাবে বসা যায় তাহলে যেকোনো ব্যথা কম হবে.খেয়াল রাখতে হবে কনুই যেন সোজা থাকে আর শরীর যেন স্ট্রেইট থাকে, মাথা যেন সামনের দিকে ঝুঁকে না থাকে.



258 views0 comments

Comments


  • Instagram
  • Facebook
  • LinkedIn
  • YouTube
bottom of page