কম্পিউটার এ বসবেন কী ভাবে?

Updated: Jul 12

কম্পিউটার আমাদের কাজের পরিমান যেমন কমিয়ে দিয়েছে তেমনি এর প্রভূত ব্যবহার আমাদের শরীর এর জন্য অভিশাপ নিয়ে এসেছে . ঘাড় আর কোমরের ব্যথা হামেশাই লেগে থাকে যারা সারাদিনে অনেকটা সময় কম্পিউটার এর সামনে বসে থাকে . কাজের জন্য যদি আমাদের কম্পিউটার এর সামনে বসে থাকতে হয় তাহলে আমাদের বসা ঠিক করতে হবে. আমরা যদি সায়েন্টিফিক্যালি বসতে পারি তাহলে আমাদের স্পাইন এর ঠিকমতো খেয়াল আমরা রাখতে পারবো . নাহলে দীর্ঘদিন ভুলভাবে বসার জন্য ডিস্কপ্রলাপস হতে পারে, এবং দীর্ঘদিন তা অবহেলা করলে ক্যানাল স্টেনোসিস এবং অবশেষে সার্জন এর শরণাপন্ন হতে হবে. তাই সুস্থ থাকতে থাকতে সচেতন হওয়াই ভালো.


কম্পিউটার এ দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করলে কী কী অসুবিধা হতে পারে?

  • মাথা ব্যথা

  • ঘাড়ে ব্যথা

  • চোখে স্ট্রেন

  • পিঠে ব্যথা

  • কোমরে ব্যথা

  • হাতের কব্জি এবং আঙুলে ইনজুরি

  • রিপিটিটিভ স্ট্রেস ইনজুরিজ

  • ঘুমের অসুবিধা

কী কী করলে ভালো থাকবেন?


১. কোমর এর জয়েন্ট যেন মোটামুটি ১০০ ডিগ্রী ভাজথাকে,তার বেশি নয়.সব সময় মাথায়রাখতে হবে যে হিপজয়েন্ট যেন হাঁটুর জয়েন্ট এর ওপর থাকে , তাহলে কোমরের গ্যাপ (লোর্ডটিক কার্ভেচার) ঠিক মতো মেইনটেইন হবে.




২. গোটা স্পাইন সমেত মাথা যেন ব্যাক সাপোর্ট পায়.ব্যাক সাপোর্ট পেলে পিঠের মাসল এর বেশি কাজ করতে হবে না,তারা রেস্ট পাবে. তাহলে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকলেও ব্যথা বেদনা কম হবে.



৩. চোখের সাথে স্ক্রিন যেন ২০-২৮ ইঞ্চি দুরত্বে থাকে এবং সমান্তরাল থাকে.স্ক্রিন যদি ওপর বা নিচে থাকে তাহলে ঘাড় ওপরে বা নিচে করে এডজাস্ট করতে হবে, তাতে ঘাড়ের ব্যথা বাড়বে.





৪. টাইপ করার সময় যেন হাত সোজা থাকে, বেঁকে না যায়. নাহলে কার্পেল টানেল সিনড্রোম দেখা দিতে পারে.দীর্ঘক্ষণ টাইপ করার সময় রিস্ট এর ওপর চাপ পড়লে মিডিয়ান নার্ভ কম্প্রেশন হতে পারে. তখন আঙ্গুল ঝিন ঝিন করা বা অবশ হতে পারে.


Hand placement over keyboard

৫. পায়ের তলায় সাপোর্ট রাখুন যাতে পা পুরোপুরি বেকিয়ে না রাখতে হয়, পা নিউট্রাল থাকে.


৬ . মাউস ধরা ঠিক মতো না হলে রিস্ট জয়েন্ট এ ব্যথা অবশ্যাম্ভাবী. ছবিতে দেখানো অনুযায়ী মাউস ধরারচেষ্টা করুন.


একটা জিনিস সবসময় মাথায় রাখতে হবে যখন যেভাবেই বসুন না কেন হিপ জয়েন্ট যেন হাঁটুর জয়েন্ট এর থেকে সবসময় ওপর এ থাকে তাহলে কোমরের লোর্ডটিককার্ভেচার মেইনটেইন হবে আর কোমর নিউট্রাল পসিশন এ থাকবে. নচেৎ ফ্লাট ব্যাক থাকলে কোমর সারাক্ষন ফ্লেক্সন এ থাকবে যা অনবরত নার্ভ রুট কে কম্প্রেশন করতে থাকবে


This blog written by Dr. Satyen Bhattacharyya also published in জনতার কথা (click the below link)

https://janatarkatha.com/health/learn-how-much-damage-can-be-done-by-forgetting-to-sit-down-002740

337 views1 comment